খাশোগি হত্যাকাণ্ডে ঘটনায় জঘন্য রায় হয়েছে: তুরস্ক

Published: মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৯ ৬:১৩ অপরাহ্ণ   |   Modified: মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৯ ৬:১৩ অপরাহ্ণ
 

স্বাধীন খবর ডট কম

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যায় জড়িতের বিরুদ্ধে সৌদি আরবের রায়ে বিশ্বজুড়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য এ রায়কে স্বাগত জানালেও, পুরো বিচার প্রক্রিয়ার স্বচ্ছতা এবং গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে জাতিসংঘ, অ্যামনেস্টিসহ বেশ কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠন।

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের রায়ের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে জাতিসংঘ। মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের মুখপাত্র স্টিফেন দুজারিক খাশোগি হত্যার বিচার প্রক্রিয়ার স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি অভিযোগ করেন, স্বাধীনভাবে তদন্ত করতে পারেনি খাশোগি হত্যাকাণ্ডের তদন্ত কমিটি।

খাশোগি হত্যার রায়কে জঘন্য হিসেবে আখ্যা দিয়েছে তুরস্ক। প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ানের জ্যেষ্ঠ মুখপাত্র ফারেটিন আলতুন টুইটে বহুল আলোচিত এই হত্যাকাণ্ডের তদন্তের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি বলেন, পুরো তদন্ত ও বিচার প্রক্রিয়ায় প্রকৃত দোষীদের আড়াল করা হয়েছে।

তুরস্কের মতোই মন্তব্য করেছে মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালও। সংগঠনের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, স্বাধীনভাবে তদন্ত করতে বিচারবিভাগকে বাধা দিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

তবে এ রায়ে সন্তোষ জানিয়েছেন সাংবাদিক জামাল খাশোগির পুত্র সালাহ খাশোগি। এক টুইটে তার পরিবার সঠিক বিচার পেয়েছে জানিয়ে সৌদি বিচার বিভাগকে ধন্যবাদ জানান তিনি। একইসঙ্গে পুরো বিচার প্রক্রিয়া স্বচ্ছতার সঙ্গে হয়েছে বলেও দাবি করেন সালাহ্‌।

যদিও খাশোগিপুত্রের এমন অবস্থানে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন কিছু পর্যবেক্ষক। কারণ এই হত্যাকাণ্ডের পর সৌদি কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছিলেন সালাহ। এরপর পরই সৌদি বাদশাহ ও যুবরাজ সালমানের সঙ্গে দেখা করার পরই নিজের অবস্থান থেকে সরে আসেন খাশোগিপুত্র।


এদিকে খাশোগি হত্যার রায়কে স্বাগত জানিয়ে একে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হিসেবে অভিহিত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে স্বচ্ছভাবে বিচার প্রক্রিয়া শেষ করায় ধন্যবাদ জানায় রিয়াদকে।

এছাড়াও খাশোগি হত্যাকাণ্ডের রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোমেনিক রাব। তবে তিনি বলেন, যুক্তরাজ্য যেকোন মৃত্যুদণ্ডেরই বিপক্ষে। একইসঙ্গে ভবিষ্যতে যাতে এ ধরণের ঘটনা আর না ঘটে সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতেও সৌদি কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

২০১৮ সালের অক্টোবরে তুরস্কের সৌদি কন্সুলেটে খুন হন সৌদি যুবরাজ সালমানের কট্টর সমালোচক জামাল খাশোগি। প্রথমে অস্বীকার করলেও, বৈশ্বিক চাপের মুখে পরে এই আলোচিত হত্যাকাণ্ডের দায় নেয় সৌদি সরকার। এর ধারাবাহিকতায় সোমবার হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে ৫ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেয় দেশটির এক আদালত।

 
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com