ডুমুরিয়ায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত-২

Published: মঙ্গলবার, জুন ৩০, ২০২০ ২:১০ অপরাহ্ণ   |   Modified: মঙ্গলবার, জুন ৩০, ২০২০ ২:১০ অপরাহ্ণ
 

স্বাধীন খবর ডট কম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

                

মোক্তার হোসেন, ডুমুরিয়া, খুলনা।
ডুমুরিয়ার পল্লীতে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষ গণি বিশ্বাসের সহযোগীদের হামলায় আহত হয়েছেন বিধবা  লতিফা বেগম ও তার  ভাই মোস্তফা গাজী। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সকালে উপজেলার রুদাঘরা গ্রামে। আহতদের চিকিৎসার জন্যে ডুমুরিয়া উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ভূক্তভোগী নারীর পরিবার ও এলাকা বাসী সূত্রে জানা গেছে উপজেলার রুদাঘরা গ্রামের মৃত সাহেব আলী গাজীর মেয়ে সাবেক ইউপি সদস্য রোজিনা পারভীনের  পরিবারের সাথে একই এলাকার গণি বিশ্বাস ও তার পুত্র শহিদুল ইসলাম বিশ্বাসের দীর্ঘ দিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। ঘটনার দিন সোমবার সকালে রোজিনা পারভীনের বড় বোন  বিধবা লতিফা বেগম(৫০) শ্রমিক দিয়ে তার বসত ভিটার কলা গাছের পাতা কাঁটছিলো। এ সময় প্রতিপক্ষ গণি বিশ্বাস(৬০) এর হুকুমে তার স্ত্রী জোহরা বেগম(৫৫), পুত্র শহিদুল ইসলামের স্ত্রী তানিয়া বেগম(৩৫),পুত্র শরিফুল বিশ্বাসের স্ত্রী রোজিনা বেগম (২২)সহ অন্যানরা লতিফা বেগমের কাঁটা কলাপাতা গুলি তার বাড়ি থেকে নিজেদের বাড়িতে নিয়ে যেতে থাকে। এ সময় লতিফা বেগম বাঁধা দিতে গেলে তাকে অশ্লীল ভাষায় গালি গালাজ সহ মারপিট করে গুরুতর ফোলা জখম করে। খবর পেয়ে লতিফার ভাই মোস্তফা গাজী(৬০) বাঁধা দিতে গেলে তাকেও মারপিট  এবং জীবন নাশসহ বিভিন্ন রকম হুমকি ধামকি দেয়। আহতদের ডুমুরিয়া উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। মারপিটের ঘটনার প্রত্যাক্ষদর্শী কলা পাতা কাঁটায় নিয়োজিত শ্রমিক সমীর দাস  জানান, তারা বিভিন্ন সময়ে লতিফা বেগমের কলা বাগান থেকে কলা পাতা কিনে থাকেন।কিন্ত এবার পাতা কেঁটে রাখার সাথে সাথে স্হানীয় গণি বিশ্বাসের পরিবারের লোকজন তা নিয়ে যেতে থাকলে লতিফা বেগম বাঁধা দিতে গেলে তাকে মারপিট করে। অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে আহত লতিফা বেগমের বোন রোজিনা পারভীন জানান, গণি বিশ্বাস ও তার ছেলে শহিদুল বিশ্বাস আমাদের ভোগ দখলীয় বসত ভিটার জমি দীর্ঘ দিন ধরে জবর দখলের অপচেষ্টা চালিয়ে আসছে।বিষয়টি নিয়ে বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত,খুলনায় আমার দায়েরকৃত একটি মামলা চলমান রয়েছে। ইতোমধ্যে আদালত ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৪৪/১৪৫ ধারা মোতাবেক ভোগ দখলীয় স্হিতি অবস্হা বজায় রাখার আদেশ দিয়েছেন। অথচ গণি বিশ্বাস গং রা আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা করে বার বার আমাদের জমি জবর দখলের অপচেষ্টাসহ নানাবিধ হুমকি ধামকি এবং হয়রানি  অব্যহত রেখেছে।বিষয়টি নিয়ে গত ০২ জানুয়ারী ২০২০ তারিখে ডুমুরিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। অভিযোগের বিষয়ে গণি বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
 
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com