পাইকগাছায় সমিতির সঞ্চয়ের টাকা চাওয়ায় গ্রাহকের স্বামীকে মারপিট করে আহত করার অভিযোগ

Published: মঙ্গলবার, আগস্ট ১১, ২০২০ ৯:০৩ পূর্বাহ্ণ   |   Modified: মঙ্গলবার, আগস্ট ১১, ২০২০ ৯:০৩ পূর্বাহ্ণ
 

স্বাধীন খবর ডট কম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


পাইকগাছা প্রতিনিধি \
পাইকগাছায় সমিতির সঞ্চয়ের টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে সমিতির লোকজন কর্তৃক গ্রাহকের স্বামীকে মারপিট করে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গ্রাহকের স্বামী আহত খোকন বাদী হয়ে সমিতির পরিচালকসহ ৬জনের নাম উল্লেখ পূর্বক ৩/৪ জন অজ্ঞাত ব্যক্তির নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। ঘটনাটি উপজেলার আমুরকাটা গ্রামে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, আমুরকাটা গ্রামের খোকন মন্ডলের স্ত্রী নমিতা রাণী মন্ডল পার্শ্ববর্তী সোলাদানা গ্রামে অবস্থিত দিশা সমবায় সমিতি লিঃ এর নিয়মিত সদস্য ছিলেন। ইতোপূর্বে তিনি সমিতি হতে ২০ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করে এবং নির্দিষ্ট সময়ে ঋণের টাকা পরিশোধ করেন। সদস্য হওয়ার সুবাদে প্রতিনিয়ত সঞ্চয়ের টাকা জমা করে প্রায় ৩ হাজার টাকা জমা হয়। উক্ত টাকা ফেরত চাইলে সমিতির কর্মীদের সাথে নমিতার বাগ-বিতন্ডা হয়। নমিতা টাকা না দিলে আইনের আশ্রয় নিবেন মর্মে জানিয়ে দিয়ে বাড়ীতে যায়। রোববার দুপুরে সমিতির পরিচালক সোলাদানা গ্রামের মৃত মান্দার সানার পুত্র সুরেশ সানা, মৃত বিধান সানার পুত্র পিটার সানা সহ খালিয়ারচক গ্রামের কর্মী প্রান্ত মন্ডল, তার পিতা মন্টু মন্ডল, চাচা খোকন মন্ডল সহ একাধিক ব্যক্তি মটরসাইকেলযোগে আমুরকাটা গ্রামে খোকনের মুদি দোকানে হামলা করে। তাকে বেদম মারপিট ও দোকান ভাংচুর করে ব্যাপক ক্ষতি করে। তাদের তান্ডবে বঁাধা দিতে আসলে খোকনের স্ত্রী নমিতা মন্ডল ও কন্যা কলেজ ছাত্রী ফাল্গুনী মন্ডলকেও মারপিট মারপিট করে আহত করে। খোকনের অবস্থা খারাপ হলে তাকে পাইকগাছা হাসপাতালে ভর্তি করে। এদিকে সমিতির দোহায় দিয়ে সমিতির পক্ষ থেকে আহতদের নামে পাইকগাছা থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছে। এ ঘটনায় খোকন বাদী হয়ে সমিতির ৬ কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দায়ের করেছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
 
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com